রক্ত কান্নার সাধক

0
630
00900
00900

হযরত ফাতেহ মোসেলি রহ.-এর নাম আমরা অনেকেই হয়তো জানি না। তিনি ছিলেন একজন সাধক ও মহান বুযুর্গ। আল্লাহ তা’আলার সাথে তাঁর ছিলো গভীর ও নিবিড় ইশক ও মুহাব্বাত। সারাক্ষণ তিনি আল্লাহ তা’আলার ভয়ে কাঁদতেন। আল্লাহকে পাওয়ার আশায় ব্যকুল থাকতেন সদা সময়। মাঝে মাঝে তাঁর দু চোখ বেয়ে রক্ত ধারা প্রবাহিত হতো। লোকজন অবাক হয়ে জিজ্ঞাসা করতো, হযরত! আপনি এতো কাঁদছেন কেনো? অশ্র“ শেষ হয়ে রক্ত বয়ে যাচ্ছে যে!!
তিনি বলতেন- ‘রক্ত ধারা প্রবাহিত হোক, তবুও যেনো আমার কান্না আল্লাহ তা’আলার কাছে মুনাফিকির মিশ্রণ থেকে মুক্ত থাকে।’

তাঁর সাধনা দৃঢ়তা ও খোদাভীতি দেখে সবাই নির্বাক হয়ে ভাবতো, এও কি সম্ভব!!
হযরত ফাতেহ মোসেলি রহ.-এর ইনতিকালের পর অপর এক বুযুর্গ তাঁকে স্বপ্নে দেখতে পেয়ে জিজ্ঞাসা করলেন, ‘দুনিয়াতে তো আপনি সারাক্ষণ কাঁদতেন; অশ্র“ ফুরিয়ে আপনার চোখ বেয়ে রক্ত প্রবাহিত হতো। তো মহান আল্লাহ তা’আলা আপনার সাথে কেমন ব্যবহার করলেন?
ফাতেহ রহ. জওয়াবে বললেন-
“আল্লাহ তা’আলা আমাকে বললেন, গত ৪০ বছর যাবত তোমার আমলনামায় আমি কোনো গোনাহ দেখিনি। তাই তিনি আমার ওপর খুশি হয়েছেন।”
ভাবতেই কেমন লাগছে!! কত বড় সাধনা আর কত বড় পাওনা। সামান্য কয়েক দিনের এই ধরণীতে যদি আমরাও আল্লাহ তা’আলাকে খুশি করতে পারি, তা হলে অনন্ত অসীম পরকাল হবে আনন্দময়। একজন আল্লাহ প্রেমিক মুমিন ব্যক্তির জন্য তাঁর মহান রবের সন্তুষ্টির চেয়ে মূল্যবান পাওনা আর কি হতে পারে!!

সূত্র- শায়খুল হাদিস যাকারিয়া রহ.-এর লেখা থেকে সংগৃহীত

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.